মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

গাইাবান্ধার ইতিহাস

 

নামকরণ:
কথিতআছে আজ থেকে প্রায়৫২০০ বছর আগে মহাভারতীয় যুগে গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জএলাকায় বিরাটেছিল বিরাট রাজার রাজধানী। এখানে পঞ্চপান্ডব এক বছরঅজ্ঞাত বাসে ছিল এবং কুরুক্ষেত্র যুদ্ধেবিরাট রাজা পান্ডবদের পক্ষে ছিলেন। বিরাট রাজার৬০(ষাট) হাজার গাভী ছিল মর্মে  জানা যায় আর সেই গাভী বা গাই বেঁধে রাখারস্থানহিসেবে গাইবান্ধা নামটি এসেছে বলে কিংবদন্তী রয়েছে। ১৮৫৮ সালের ২৭আগষ্ট গাইবান্ধামহকুমা পাতিলাদহ পরগনার ভবানীগঞ্জে স্থাপিত হয়। পরবর্তীতেমহকুমা সদরভবানীগঞ্জ হতে বর্তমান জেলা সদরে স্থানান্তরিত হয়। ১৫-০২-১৯৮৪খ্রি: বুধবার ২রাফাল্গুণ ১৩৯০ বাংলা ১২ইং জমাদিউল আউয়াল ১৪০৪ হিজরী সনেগাইবান্ধা জেলা হিসেবেপ্রতিষ্ঠিত হয়।

উপজেলার ভৌগলিক অবস্থান:
গাইবান্ধা জেলাসদর হতে উপজেলার দুরত্ব-০২ কিলোমিটার। গাইবান্ধা সদরউপজেলার উত্তরে-সুন্দরগঞ্জউপজেলা, পূর্বে-রাজীবপুর ও দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা, দক্ষিনে- সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলাএবং পশ্চিমে- পলাশবাড়ী ও সাদুল্লাপুরউপজেলা অবস্থিত। ইহা ২৫.০২ এবং ২৫.৩৯ উত্তরঅক্ষাংশে ৮৯.১১ এবং ৮৯.৪৬পূর্ব দ্রাঘিমাংশে অবস্থিত।

উল্লেখ্যযোগ্য স্থান বা স্থাপনা:
উপজেলারঐতিহাসিক ও দর্শনীয় স্থানমীরেরবাগান যা ১০ নং ঘাগোয়া, ইউনিয়নের দাড়িয়াপুর মৌজায় অবস্থিত।